কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


করিমগঞ্জে ওয়ান টেন জুয়ার আসর থেকে ২৪ জুয়াড়ি আটক, জেল-জরিমানা


 স্টাফ রিপোর্টার | ২৭ নভেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ৫:৪৫ | অপরাধ 



কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে র‌্যাব-১৪ এর সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের একটি অপারেশনাল টিম অভিযান পরিচালনা করে জুয়া খেলার নগদ তিন লাখ ৩৪ হাজার ৪১০ টাকা ও ওয়ান-টেন জুয়ার সরঞ্জামসহ ২৪ জুয়াড়িকে আটক করেছে।

শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) ভোররাতে করিমগঞ্জ উপজেলার সাদকখালী এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের আটক করা হয়।

এ সময় জুয়াড়িদলের কাছ থেকে জুয়া খেলার নগদ তিন লাখ ৩৪ হাজার ৪১০ টাকা, ২০টি নন পয়েন্টেড ডার্টস, ১০টি কাঠের টুকরা, একটি ওয়ান টু টেন বোর্ড, একটি ওয়ান টু টেন প্যানা এবং এক বান্ডিল তাস উদ্ধার করা হয়।

আটক ২৪ জুয়াড়ি হচ্ছে, মো. হাবিবুর রহমান (৫৫), ইয়াসিন (৩৯), নূরজ্জামান (৪৫), সুহেল (৩২), আলম (৩৫), আলাল (৪৫), আবু সাঈদ (৬১), লিটন দাস (৪৮), মো. দুলাল মিয়া (৫২), মো. শহিদুল ইসলাম (৪৮), শাহজাহান (৫০), আবু বকর (৫৯), দ্বীন ইসলাম (৩০), সুরুজ আলী (২৭), নিজামউদ্দিন (৪৮), শহিদুল্লাহ (৬০), জিয়াউর রহমান (৪২), রফিকুল ইসলাম (৪০), আতিক (৪৭), আবু সাঈদ (৪৫), জুলহাস (৫০), গোলাম মিয়া (৫০), প্রিয়তোষ সরকার (৪৬) এবং সুমন পাল (৩৮)।

তাদের মধ্যে মো. হাবিবুর রহমান ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার আঠারোবাড়ির মো. আব্দুল হামিদের ছেলে, ইয়াসিন বিবাড়িয়া জেলার বাদুস্বর গ্রামের শাহজাহানের ছেলে, নূরজ্জামান কিশোরগঞ্জ শহরের রথখলা এলাকার নূরুল ইসলামের ছেলে, সুহেল (৩২), কটিয়াদীর মৃত আবু তাহেরের ছেলে, আলম কিশোরগঞ্জ সদরের পুলেরঘাট এলাকার ওয়াসীম উদ্দিনের ছেলে, আলাল ঈশ্বরগঞ্জের মৃত শাহ নেওয়াজের ছেলে, আবু সাঈদ নান্দাইলের মৃত আব্দুল বসিরের ছেলে, লিটন দাস বাজিতপুরের মৃত মনিন্দ্র চন্দ্র দাসের ছেলে, মো. দুলাল মিয়া নান্দাইলের ধরগাঁও গ্রামের নূরুল ইসলামের ছেলে, মো. শহিদুল ইসলাম কিশোরগঞ্জ শহরের বত্রিশ এলাকার মৃত শামছুদ্দিনের ছেলে, শাহজাহান শহরের তারাপাশা এলাকার মৃত শফিকুর রহমানের ছেলে, আবু বকর করিমগঞ্জের সিদলারপাড় এলাকার মৃত নান্নু খার ছেলে, দ্বীন ইসলাম করিমগঞ্জের বাঁশহাটির মো. আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে, সুরুজ আলী করিমগঞ্জ উত্তরপাড়ার মো. শুক্কুর মাহমুদের ছেলে, নিজামউদ্দিন ঈশ্বরগঞ্জের দত্তপাড়ার মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে, শহিদুল্লাহ নান্দাইলের মৃত সাহেদ আলীর ছেলে, জিয়াউর রহমান কেন্দুয়ার গন্দা গ্রামের মৃত বাহার উদ্দিনের ছেলে, রফিকুল ইসলাম হোসেনপুরের আফছার উদ্দিনের ছেলে, আতিক শহরের তারাপাশা এলাকার মৃত আবু বকরের ছেলে, আবু সাঈদ কিশোরগঞ্জ সদরের ধনাইল গ্রামের মৃত ইব্রাহিমের ছেলে, জুলহাস মহিনন্দ গ্রামের মৃত রুকন উদ্দিনের ছেলে, গোলাম মিয়া করিমগঞ্জে নোয়াকান্দি এলাকার মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে, প্রিয়তোষ সরকার শহরের বত্রিশ জেলা স্মরণী এলাকার মৃত প্রমোধ সরকারের ছেলে এবং সুমন পাল কিশোরগঞ্জ সদরের ধনাইল গ্রামের গোপাল পালের ছেলে।

র‌্যাব-১৪ এর সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার লে. কমান্ডার এম শোভন খান বিএন কিশোরগঞ্জ নিউজকে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

লে. কমান্ডার এম শোভন খান বিএন কিশোরগঞ্জ নিউজকে জানান, র‌্যাব-১৪, সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্প গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, করিমগঞ্জ উপজেলার সাদকখালী এলাকায় একটি পরিত্যক্ত ঘরের ভিতর কতিপয় লোক টাকার বিনিময়ে জুয়া খেলছে।

এই তথ্যের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য র‌্যাবের নিরবচ্ছিন্ন গোয়েন্দা নজরদারী চালানো হয় এবং তথ্যের সত্যতা পাওয়া যায়।

এরই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে সেখানে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে জুয়া খেলার নগদ তিন লাখ ৩৪ হাজার ৪১০ টাকা, ২০টি নন পয়েন্টেড ডার্টস, ১০টি কাঠের টুকরা, একটি ওয়ান টু টেন বোর্ড, একটি ওয়ান টু টেন প্যানা এবং এক বান্ডিল তাস ২৪ জন জুয়াড়িকে আটক করা হয়।

তারা জিজ্ঞাসাবাদে দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন এলাকায় টাকার বিনিময়ে জুয়া খেলে আসছিল বলে স্বীকার করে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাদের মধ্যে প্রিয়তোষ সরকার এবং সুমন পাল এই দুইজনকে একশত টাকা করে জরিমানা এবং বাকি ২২ জনের প্রত্যেককে ২০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন জেলা কালেক্টরেটের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অর্ণব দত্ত।


[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর