কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. সজল সাহা করোনায় আক্রান্ত


 কিশোরগঞ্জ নিউজ রিপোর্ট | ১২ জুলাই ২০২০, রবিবার, ৮:১০ | বিশেষ সংবাদ 


করোনা চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনকারী কিশোরগঞ্জের করোনা ডেডিকেটেড শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষ ও প্রকল্প পরিচালক ডা. সজল কুমার সাহা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

রোববার (১২ জুলাই) তাঁর নমুনায় কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। হাসপাতালটিতে গত শুক্রবার (১০ জুলাই) ভর্তি হওয়ার পর চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় রোববার (১২ জুলাই) তাঁর নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে তাঁর কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

রোববার (১২ জুলাই) রাত ৮টার দিকে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে জানান, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষ ও প্রকল্প পরিচালক ডা. সজল কুমার সাহা বেশ কিছু দিন ধরে জ্বর-কাশিতে ভুগছিলেন। এর আগে দুইবার তাঁর নমুনা পরীক্ষা করা হলে দুইবারই নেগেটিভ আসে।

গত শুক্রবার (১০ জুলাই) জ্বর ও কাশি নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় রোববার (১২ জুলাই) আবারও তাঁর নমুনা সংগ্রহ করা হয়। নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে তাঁর কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, এর আগে গত ৬ জুলাই শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপাধ্যক্ষ শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. মোহাম্মদ মোহসীন এঁর করোনা শনাক্ত হয়।

শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষ এবং উপাধ্যক্ষসহ সেবা প্রতিষ্ঠানটির মোট ১৬ জন এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। অন্যদের মধ্যে পাঁচজন সহকারী অধ্যাপক, তিনজন চিকিৎসক, দুইজন নার্স, একজন টেকনোলজিস্ট এবং তিনজন আউটসোর্সিং স্টাফ রয়েছেন।

গত ১৪ এপ্রিল ৫শ’ শয্যার শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটিকে করোনা ডেডিকেটেড হিসেবে ঘোষণার পর থেকে আন্তরিকভাবে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন হাসপাতালটিকে কর্মরত চিকিৎসক, নার্স ও আউটসোর্সিং স্টাফরা।

বুকভরা সাহস আর আন্তরিকতা নিয়ে সেবা দিতে গিয়ে করোনাভাইরাসে এরই মধ্যে সেবা প্রতিষ্ঠানটির মোট ১৬ জন এ আক্রান্ত হয়েছেন। কিন্তু করোনার এই থাবা চিড় ধরাতে পারেনি সম্মুখসারির এই যোদ্ধাদের মনোবলে। কোভিড চিকিৎসায় তাঁরা রাখছেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর