কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে নতুন ২৪ জনের করোনা, সুস্থ ১৩, করোনা আক্রান্ত কেউ নেই দুই উপজেলায়


 কিশোরগঞ্জ নিউজ রিপোর্ট | ১১ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার, ১০:৫৮ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জে সর্বশেষ মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) দিবাগত রাতে প্রকাশিত রিপোর্টে জেলায় নতুন করে ২৪ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে। একই সঙ্গে নতুন করে ১৩ জন সুস্থ হয়েছেন। সর্বমোট শনাক্ত, সর্বমোট সুস্থ ও সর্বমোট আক্রান্ত এই তিন ক্ষেত্রেই জেলায় শীর্ষে রয়েছে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) দিবাগত রাতে মোট ১৯১ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশিত এই নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে জেলায় নতুন করে মোট ২৪ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। অন্যদিকে ১৬৭ জনের নেগেটিভ এসেছে।

নতুন ২৪ জনের করোনা পজেটিভ আসায় জেলার ১৩টি উপজেলায় মোট ২১৯৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে মোট ১৮৯৬ জন সুস্থ হয়েছেন। এছাড়া করোনার ছোবলে এই সময়ে ঝরে গেছে ৩৮টি মূল্যবাণ প্রাণ।

সুস্থ ও মৃত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২৬৫ জন।

নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া ২৪ জনের মধ্যে ১০ জন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায়। এছাড়া বাকি ১৪ জনের মধ্যে হোসেনপুর উপজেলায় ২ জন, তাড়াইল উপজেলায় ৩ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ৩ জন, ভৈরব উপজেলায় ২ জন, নিকলী উপজেলায় ১ জন ও বাজিতপুর উপজেলায় ৩ জন রয়েছেন।

নতুন সুস্থ হওয়া ১৩ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ও কটিয়াদী উপজেলার সর্বোচ্চ ৫ জন করে মোট ১০ জন রয়েছেন। এছাড়া বাকি ৩ জনের মধ্যে তাড়াইল উপজেলার ২ জন ও ইটনা উপজেলার ১ জন রয়েছেন।

সুস্থ ও মৃত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ২৬৫ জনের মধ্যে ২৮ জন হাসপাতালে এবং বাকি ২৩৭ জন নিজ নিজ বাড়িতে হোম আইসোলেশনে রয়েছেন।

এছাড়া অন্য জেলায় শনাক্তকৃত ১ জন করোনা পজেটিভ এবং ৬ জন সাসপেক্টটেড/নেগেটিভ বিভিন্ন হাসপাতালে আইসোলেশনে রয়েছেন।

শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রি-আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তিকৃত জরুরী রোগীসহ শনিবার (৮ আগস্ট), রোববার (৯ আগস্ট), সোমবার (১০ আগস্ট) ও মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) সংগৃহীত ১৮৮ জনের নমুনা কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়।

এছাড়া বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সোমবার (১০ আগস্ট) সংগৃহীত ৩ জনের নমুনা ঢাকায় পরীক্ষা করা হয়।

দুইটি ল্যাবে মোট ১৯১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে ২৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

সোমবার (১০ আগস্ট) পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ জেলায় করোনা শনাক্তের সংখ্যা ছিল ২১৭৫ জন। মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) নতুন করে আরো ২৪ জনের করোনা শনাক্ত হওয়ায় বর্তমানে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২১৯৯ জনে।

এদিকে জেলায় করোনাভাইরাস থেকে নতুন করে ১৩ জন সুস্থ হয়েছেন। এর আগে জেলায় সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ছিল ১৮৮৩ জন। ফলে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮৯৬ জন।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) দিবাগত রাত সাড়ে ১০টার দিকে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান কিশোরগঞ্জ নিউজকে জানান, প্রকাশিত ১৯১ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে নতুন করে ২৪ জনের পজেটিভ ও ১৬৭ জনের নেগেটিভ এসেছে।

ফলে মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) পর্যন্ত পাওয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী কিশোরগঞ্জ জেলায় মোট ২১৯৯ জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৬৭৮ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৫৬ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ১২২ জন, তাড়াইল উপজেলায় ৯৭ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ১২২ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ১২৩ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ১১৩ জন, ভৈরব উপজেলায় ৫৭৭ জন, নিকলী উপজেলায় ৪৭ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ১৮১ জন, ইটনা উপজেলায় ৩২ জন, মিঠামইন উপজেলায় ৩৮ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ১৩ জন এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

তাদের মধ্যে ৩৮ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন। উপজেলাওয়ারী হিসেবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ৯ জন, হোসেনপুর উপজেলার ১ জন, করিমগঞ্জ উপজেলার ২ জন, তাড়াইল উপজেলার ১ জন, কটিয়াদী উপজেলার ১ জন, কুলিয়ারচর উপজেলার ৩ জন, ভৈরব উপজেলার ১৪ জন, নিকলী উপজেলার ৩ জন, বাজিতপুর উপজেলার ২ জন, ইটনা উপজেলার ১ জন ও মিঠামইন উপজেলার ১ জন মৃত ব্যক্তি রয়েছেন।

সুস্থ ও মৃত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে বর্তমানে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২৬৫ জন। উপজেলাওয়ারী হিসাবে, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ১৪১ জন, হোসেনপুর উপজেলায় ৭ জন, করিমগঞ্জ উপজেলায় ২ জন, তাড়াইল উপজেলায় ১২ জন, পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় ১৫ জন, কটিয়াদী উপজেলায় ৯ জন, কুলিয়ারচর উপজেলায় ৫ জন, ভৈরব উপজেলায় ৪১ জন, নিকলী উপজেলায় ১২ জন, বাজিতপুর উপজেলায় ২০ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ১ জন বর্তমানে করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি রয়েছেন।

জেলার ১৩ টি উপজেলার মধ্যে ইটনা ও মিঠামইন এই দু্ই উপজেলায় বর্তমানে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কোন রোগী নেই।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর