কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরাল ভাঙচুর, দুস্কৃতিকারী গ্রেপ্তার


 কিশোরগঞ্জ নিউজ রিপোর্ট | ৩০ জুলাই ২০২১, শুক্রবার, ৬:১৯ | বিশেষ সংবাদ 



কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের আখড়াবাজার সেতু এলাকায় সৈয়দ নজরুল ইসলাম চত্বর সংলগ্ন স্থানে আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের নবনির্মিত ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। দুস্কৃতিকারীরা ম্যুরালটিতে কিশোরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহমুদ পারভেজের উদ্বোধনী নামফলক এবং সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরালে ভাঙচুর করে।

এ ঘটনায় শুক্রবার (৩০ জুলাই) কিশোরগঞ্জ পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে সদর মডেল থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা (নং-২৮) দায়ের করেছেন। বুধবার (২৮ জুলাই) দিবাগত রাত ১০টা থেকে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টার মধ্যে ভাঙচুরের এ ঘটনা ঘটে বলে মামলার বাদী এজাহারে উল্লেখ করেছেন।

তবে বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) সন্ধ্যায় বিষয়টি জানাজানি হলে এ নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

মামলা দায়েরের পর শুক্রবার (৩০ জুলাই) বিকালে অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে পারভেজ (৪০) নামে এক দুস্কৃতিকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বিকাল ৪টার দিকে ঘটনাস্থল সংলগ্ন এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পারভেজ জেলার ইটনা উপজেলার রায়টুটী পশ্চিমপাড়ার মৃত শাহজাহান চৌধুরীর ছেলে। সে শহরের চরশোলাকিয়া বনানী মোড় এলাকার একটি বাসায় ভাড়া থাকে।

পুলিশ জানায়, ম্যুরাল ভাঙচুরের বিষয়টি অবহিত হওয়ার পর পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার) এর নির্দেশনায় মাঠে নামে পুলিশ। কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. আবুবকর সিদ্দিক পিপিএম এর নেতৃত্বে পুলিশের একাধিক টিম এ নিয়ে কাজ শুরু করে।

এক পর্যায়ে পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) মো. মোখলেসুর রহমান, পুলিশ পরিদর্শক জয়নাল আবেদীন, এসআই আলমাস আল রাজী ও সঙ্গীয় ফোর্স শুক্রবার (৩০ জুলাই) বিকাল ৪টার দিকে আখড়াবাজার সেতু এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুস্কৃতিকারী পারভেজকে গ্রেপ্তার করে।

কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. আবুবকর সিদ্দিক পিপিএম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ব্যাপারে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

এদিকে বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাতে ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম) আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম, পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার), জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট এম এ আফজল, পৌর মেয়র মাহমুদ পারভেজ ও কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুল কাদির মিয়া।

এছাড়া শুক্রবার (৩০ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের চাচাতো ভাই জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অজয় কর খোকন, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিলকিস বেগম প্রমুখ।

এ সময় তারা সেখানে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ম্যুরাল ভাঙচুরের প্রতিবাদে নাগরিক অধিকার সুরক্ষা মঞ্চ আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তারা আগামি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দোষীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় এনে সর্ব্বোচ শাস্তির দাবি জানান। ঘণ্টাব্যাপী এই মানববন্ধনে এডভোকেট সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু, অজয় কর খোকন, নাগরিক অধিকার সুরক্ষা মঞ্চের আহ্বায়ক শেখ সেলিম কবিরসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা বক্তব্য রাখেন।


[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর