কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জের মসজিদে মসজিদে করোনা সচেতনতামূলক প্রচারণা পুলিশের


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৬ জুলাই ২০২১, শুক্রবার, ৪:১১ | কিশোরগঞ্জ সদর 



করোনাভাইরাসের আগ্রাসী বিস্তার এখন কিশোরগঞ্জ জেলায়। বিপজ্জনক সংক্রমণের মধ্যে প্রতিদিনই বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। বাড়ছে উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যাও। জেলার মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি সবচেয়ে নাজুক।

এ পরিস্থিতিতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে জনসচেতনতা বাড়াতে এবং সর্বস্তরের মানুষকে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনে উদ্ধুদ্ধ করতে ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান বিপিএম (বার), পিপিএম (বার) এর নির্দেশে কিশোরগঞ্জ জেলার পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার) এর দিক-নির্দেশনায় কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার মসজিদে মসজিদে গিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছে পুলিশ।

শুক্রবার (১৬ জুলাই) উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকার মসজিদ থেকে শুরু করে প্রধান প্রধান মসজিদে জুমআর নামাজের খুতবার সময় সচেতনতামূলক বক্তব্য রেখেছেন কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. আবুবকর সিদ্দিক পিপিএম, পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ সফর আলী, পরিদর্শক (অপারেশন) মো. মোখলেছুর রহমান এবং অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তাগণ।

তারা মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে রাখা বক্তব্যে পরিসংখ্যান উল্লেখ করে করোনার ভয়াবহতার চিত্র তুলে ধরে সংক্রমণ রোধে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান।

এজন্যে সবাইকে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান।

যশোদল পাক্কার মাথা জামে মসজিদে মসজিদভিত্তিক এ প্রচারণায় বক্তব্য রাখেন কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. আবুবকর সিদ্দিক পিপিএম।

তিনি মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে বলেন, করোনার ভয়াবহ ছোবল থেকে বাঁচতে সবাইকে সচেতন হতে হবে এবং সম্মিলিতভাবে সবাইকে মাস্ক ব্যবহারের ওপর প্রচারণা চালাতে হবে। পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে আমরা সুরক্ষিত ও নিরাপদ থাকতে পারব।

তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, করোনাকে নিয়ে হেলাফেলা করার কোন সুযোগ নেই। শহর-গ্রাম সবজায়গায় প্রাণঘাতী এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। আমার পরিবার, আপনার পরিবার কেউই এই ভাইরাসের ঝুঁকি থেকে নিরাপদ নই।

তাই দয়া করে বিনা প্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের হবেন না। সব সময় মাস্ক পরুন এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন।

ওসি মো. আবুবকর সিদ্দিক পিপিএম কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার করোনা পরিস্থিতি পরিসংখ্যানসহ উল্লেখ এবং করোনাভাইরাসের কারণে শহীদ সৈয়দ নজরুল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উদ্বেগজনক চিত্র উল্লেখ করে বলেন, হাটবাজারে চায়ের দোকানে অহেতুক আড্ডা দেওয়া কারো জন্যই মঙ্গলজনক নয়। করোনার ভয়াল ছোবল থেকে রক্ষা পেতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং লোকসমাগম এড়িয়ে চলতে হবে।

সব সময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে ঘন ঘন হাত ধোয়া ও হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহারের পাশাপাশি সাধ্যমত পুষ্টিকর খাবার গ্রহণেরও পরামর্শ দেন ওসি আবুবকর সিদ্দিক।

এছাড়া তিনি সামর্থ্যবান ও বিত্তশালী মানুষদের প্রতি এই দুঃসময়ে সমাজের অসহায় ও কর্মহীন মানুষের পাশে থাকার জন্য অনুরোধ করেন।

পৌর এলাকার হাফিজিয়া জামে মসজিদে সচেতনতামূলক বক্তব্য রাখেন কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ সফর আলী এবং সাদুল্লারচর জামে মসজিদে বক্তব্য রাখেন পরিদর্শক (অপারেশন) মো. মোখলেছুর রহমান।

এছাড়া রশিদাবাদের জুম্মাবাড়ি জামে মসজিদে এসআই আবু হান্নান, মাইজখাপনের তাহেরগঞ্জ জামে মসজিদে এসআই মো. হাসান আলী, মহিনন্দের ক্ষিরধা বাজার জামে মসজিদে এসআই মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান, যশোদল জামে বাজার মসজিদে এসআই মো. কামাল হোসেন খান, বৌলাই বাজার জামে মসজিদে এএসআই মো. আসাদ, বিন্নাটির খুরশিদ উদ্দিন ভূঁইয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা জামে মসজিদে এসআই জুবায়ের হোসেন, মারিয়ার সওদাগর জামে মসজিদে এসআই ফারুক আহমেদ, চৌদ্দশত ইউনিয়ন পরিষদ জামে মসজিদে এসআই মো. হারুন অর রশীদ, কর্শাকড়িয়াইয়ের সেওড়া জামে মসজিদে এসআই তোফায়েল হোসেন, দানাপাটুলীর গাগলাইল জামে মসজিদে এসআই রফিকুল ইসলাম লিটন, হয়বতনগর রহমত জামে মসজিদে এসআই আলমাস আল রাজী এবং কানিকাটা জামে মসজিদে এসআই মো. রুহুল আমিন সচেতনতামূলক বক্তব্য রাখেন।

তাঁরা মাস্ক পরা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ওপর গুরুত্বারোপ করে সরকারের বিধিনিষেধ মেনে চলার অনুরোধ জানান।

এছাড়া কারো জ্বর, সর্দি ও কাশি হলে অবহেলা না করে নিকটস্থ হাসপাতালে করোনা টেস্ট করার আহ্বান জানান।


[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর