কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


আদালতে স্বীকারোক্তি দিলেন ছাত্র বলাৎকারে অভিযুক্ত মাদ্রাসা শিক্ষক


 স্টাফ রিপোর্টার | ১২ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ৩:৩১ | বিশেষ সংবাদ 


মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারে অভিযুক্ত কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরের বড়খারচর আদর্শ নূরানী ও হাফিজয়া মাদ্রাসার মুহতামিম মুফতি মাওলানা ইয়াকুব আলী (৩৫) আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

রোববার (১১ এপ্রিল) সন্ধ্যায় কিশোরগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাদ্দাম হোসেনের খাসকামরায় তার ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ডের পর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

এর আগে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে কুলিয়ারচর থানার এসআই মো. আবুল কালাম আজাদ অফিসার ও ফোর্স নিয়ে দীর্ঘ ৪৮ ঘন্টা অভিযানের পর রোববার (১১ এপ্রিল) দুপুরে কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল উপজেলার সেকান্দর নগর গ্রামের একটি বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মুফতি মাওলানা ইয়াকুব আলী উপজেলার উছমানপুর ইউনিয়নের সাবেক সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তা আব্দুল কাদিরের ছেলে।

উল্লেখ্য, মুফতি মাওলানা ইয়াকুব আলী গত ১ এপ্রিল রাত আনুমানিক ২টার দিকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে তার মাদ্রাসার এক ছাত্রকে বলাৎকার করে এ ঘটনার কথা কাউকে না বলার জন্য কোরআন শরীফ ধরিয়ে শপথ করান; এমন অভিযোগে গত ৭ এপ্রিল রাত ১০টা ৫মিনিটে অভিযুক্ত ওই মাদ্রাসার মুহতামিমের বিরুদ্ধে কুলিয়ারচর থানায় ছাত্রের বাবা বাদী হয়ে মামলা (নং-৪) দায়ের করেন।

এ বিষয়ে কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একে এম সুলতান মাহমুদ বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানোর পর তিনি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর