কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


অশ্লীল ছবি ও ভিডিও নিয়েই তাদের কারবার, পর্ণোবাণিজ্যের দুই কারিগর আটক


 কিশোরগঞ্জ নিউজ রিপোর্ট | ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শুক্রবার, ১:১৮ | অপরাধ 



মোবাইল সার্ভিসিং, বিক্রয় ও কম্পিউটার কাজের ব্যবসার আড়ালে তারা ছিলো পর্নোবাণিজ্যের ভয়ঙ্কর কারিগর। অবৈধভাবে সার্ভারের LAN নেটওয়ার্কের মাধ্যমে অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ডাউনলোড করে বিভিন্ন প্রকার ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করে কম্পিউটারের মাধ্যমে ছড়িয়ে এবং পর্নোগ্রাফি বিক্রয়, ভাড়া, বিতরণ ও সরবরাহ করাই ছিলো তাদের কাজ।

এতদিন নির্বিঘ্নে নিষিদ্ধ পর্নোগ্রাফির এই রমরমা বাণিজ্য চালিয়ে আসলেও অবশেষে তারা ধরা পড়েছে র‌্যাবের জালে। র‌্যাব-১৪ এর সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের অভিযানে আটক হয়েছে পর্নোবাণিজ্যের দুই কারিগর।

তাদের নাম পাখিল চন্দ্র পাল (৪৩) ও স্বাধীন চন্দ্র দে (১৯)। তাদের মধ্যে পাখিল চন্দ্র পাল কিশোরগঞ্জ শহরের বত্রিশ নতুন পল্লী এলাকার মৃত মনমোহন পালের ছেলে এবং স্বাধীন চন্দ্র দে একই এলাকার মৃত অখিল চন্দ্র দে এর ছেলে।

বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কিশোরগঞ্জ শহরের বড়বাজার জাহাঙ্গীর মোড়ের মা মোবাইল সার্ভিসিং এবং বিএসটি টেলিকম কম্পিউটার দোকানে অভিযান চালিয়ে এই দুই পর্নোবিক্রেতাকে আটক করেছে র‌্যাবের কিশোরগঞ্জ ক্যাম্প।

র‌্যাব-১৪ এর সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার লে. কমান্ডার এম শোভন খান বিএন এই অভিযানের নেতৃত্ব দেন।

লে. কমান্ডার এম শোভন খান বিএন কিশোরগঞ্জ নিউজকে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি কিশোরগঞ্জ নিউজকে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৪ এর সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের একটি অপারেশনাল টিম বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টার কিছু পরে কিশোরগঞ্জ শহরের বড়বাজার জাহাঙ্গীর মোড়ের মা মোবাইল সার্ভিসিং এবং বিএসটি টেলিকম কম্পিউটার দোকানে অভিযান চালায়।

অভিযানে পর্নোগ্রাফি ব্যবসায় যুক্ত পাখিল চন্দ্র পাল ও স্বাধীন চন্দ্র দে কে আটক করা হয়। এ সময় তাদের হেফাজত হতে পর্নোগ্রাফি ব্যবসায় ব্যবহৃত কম্পিউটারসহ বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক্স সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, পরস্পর যোগসাজসে দীর্ঘদিন যাবত তারা শহরের বড়বাজার জাহাঙ্গীর মোড়ের মা মোবাইল সার্ভিসিং এবং বিএসটি টেলিকম কম্পিউটার দোকান হতে অবৈধভাবে সার্ভারের LAN নেটওয়ার্কের মাধ্যমে অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ডাউনলোড করে বিভিন্ন প্রকার ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করে কম্পিউটারের মাধ্যমে ছড়িয়ে এবং পর্নোগ্রাফি বিক্রয়, ভাড়া, বিতরণ ও সরবরাহ করে আসছিল।

তাদের বিরুদ্ধে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও র‌্যাব-১৪ এর সিপিসি-২, কিশোরগঞ্জ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার লে. কমান্ডার এম শোভন খান বিএন কিশোরগঞ্জ নিউজকে জানিয়েছেন।


[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর