কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কটিয়াদীতে মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন ৫৫৯ জন প্রার্থী



 মো. রফিকুল হায়দার টিটু, কটিয়াদী | ২৬ নভেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ৮:২৭ | কটিয়াদী 



কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে মোট ৫৫৯ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৫০ জন, মেম্বার পদে ৩৮২ জন এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১২৭জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

এ উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন পত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ছিল বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর)।

উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ ছাড়া ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ দলের ২জন প্রার্থী দলীয় প্রতীক হাতপাখা এবং অন্যান্যরা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য তাদের মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী, বিএনপি ও জামায়াতে ইসলামী  বাংলাদেশ এর নেতাকর্মী রয়েছেন।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, আওয়ামী লীগ এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ছাড়া সকল প্রার্থীই স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

তবে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী, বিএনপি ও জামায়াত দলের সক্রিয় নেতা রয়েছেন।

উপজেলার বনগ্রাম ইউনিয়নে ৭জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। তারা হচ্ছেন, কামাল হোসেন মিলন (নৌকা), হাবিবুর রহমান (বিদ্রোহী), আ: হাই (স্বতন্ত্র), সাইফুল্লাজামান সরকার (বিদ্রোহী), জসিম উদ্দিন (বিএনপি স্বতন্ত্র), সিরাজুল ইসলাম শামীম (বিদ্রোহী) এবং মাহাবুবুর রহমান শাহীন (স্বতন্ত্র)।

সহশ্রাম ধূলদিয়া ইউনিয়নে ৫জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। তারা হচ্ছেন, আবুল কাসেম আকন্দ (নৌকা), শাজাহান মিয়া (বিদ্রোহী), আলতাব উদ্দিন (বিদ্রোহী), মো. বাবলু (বিএনপি স্বতন্ত্র) এবং হবিকুল ইসলাম (হাত পাখা)।

করগাঁও ইউনিয়নে ৪জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। তারা হচ্ছেন, বেলায়েত হোসেন (নৌকা), সরাফত উদ্দিন লস্কর পারভেজ (বিএনপি স্বতন্ত্র), মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল হক আফরোজ (স্বতন্ত্র) এবং মো. নাদিম মোল্লা (বিদ্রোহী)।

চান্দপুর ইউনিয়নে ৪জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। তারা হচ্ছেন, মাফুজুর রহমান মাহফুজ (নৌকা), মাহতাব উদ্দিন (বিএনপি স্বতন্ত্র), নুরুজ্জামান সুমন (স্বতন্ত্র) এবং আবুল কালাম (স্বতন্ত্র)।

মুমুরদিয়া ইউনিয়নে ৭জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। তারা হচ্ছেন, তরিকুল ইসলাম টিটো (নৌকা), মো. ছেনু মিয়া (স্বতন্ত্র), আল আমিন (স্বতন্ত্র), সাইফুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), মো.আসাদুজ্জামান (স্বতন্ত্র), মো.আলাউদ্দিন সাবেরী (বিএনপি স্বতন্ত্র) এবং নূরুল ইসলাম (বিএনপি স্বতন্ত্র)।

আচমিতা ইউনিয়নে ৮জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। তারা হচ্ছেন, এ,কে,এম মুর্শেদ সজিব (নৌকা), মো. মাহাবুবুর রহমান বাচ্চু (বিএনপি স্বতন্ত্র), মতিউর রহমান (বিদ্রোহী স্বতন্ত্র), মাওলানা মো. হাদিউল ইসলাম (স্বতন্ত্র), হান্নান (বিএনপি স্বতন্ত্র), জসীম উদ্দিন (বিদ্রোহী স্বতন্ত্র), মো. রফিকুল ইসলাম (বিদ্রোহী স্বতন্ত্র) এবং আ: কাদির (স্বতন্ত্র)।

মসূয়া ইউনিয়নে ৪জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। তারা হচ্ছেন, মোহাম্মদ রুহুল আমিন (বিদ্রোহী স্বতন্ত্র), মো. আল আমিন (নৌকা), মো. আবু বকর সিদ্দিক (বিএনপি স্বতন্ত্র) এবং এখলাসছুজ্জামান (স্বতন্ত্র)।

লোহাজুরী ইউনিয়নে ৪জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। তারা হচ্ছেন, মো. আতাহার উদ্দিন ভূইয়া রতন (নৌকা), হায়দার মারুয়া (বিএনপি স্বতন্ত্র), হুমায়ুন কবীর (স্বতন্ত্র) এবং সিরাজুল ইসলাম (হাতপাখা)।

জালালপুর ইউনিয়নে ৭জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। তারা হচ্ছেন, আ. খালেক সরকার রাজু (নৌকা), মো. হাবিবুর রহমান রুস্তম (স্বতন্ত্র), রফিকুল আলম (বিএনপি স্বতন্ত্র), মো. শাহনেওয়াজ ভূইয়া (বিদ্রোহী স্বতন্ত্র), মো. মতিউর রহমান (জামায়াত স্বতন্ত্র), গোলাপ মিয়া (স্বতন্ত্র) এবং আসাদুজ্জামান ভূইয়া (বিএনপি স্বতন্ত্র)।

তফসিল অনুযায়ী আগামী ৬ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। প্রতীক বরাদ্দ ৭ ডিসেম্বর এবং ২৬ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. রফিকুল ইসলাম জানান, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ ও প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।


[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর