কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় আগুনে কোটি টাকার ক্ষতি


 সাখাওয়াত হোসেন হৃদয় | ২ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার, ৮:৪৭ | পাকুন্দিয়া  


কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় একটি বাড়িতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। অগ্নিকাণ্ডে নগদ টাকা, একটি বীজের গুদাম, বসত বাড়ির ৮টি কক্ষের আসবাবপত্র সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটি।

বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) দুপুরের দিকে উপজেলার সুখিয়া বাজারের উত্তর পাশে বড় আজলদী গ্রামের শহীদ মিয়ার বাড়িতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এলাকাবাসী ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার জানায়, বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) বেলা আড়াইটার দিকে সুখিয়া বাজারের উত্তর পাশে শহীদ মিয়া ও তাঁর দুই ভাই অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্য হাবিবুর রহমান মিন্টু ও কৃষক বীজ ভাণ্ডারের মালিক জমাত উল্লাহর বসত বাড়িতে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এসময় হাবিবুর রহমান মিন্টুর বসতঘরের ৪টি কক্ষে আগুন লেগে ৪ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ তিন লাখ টাকা, জমির দলিলাদি, ব্যাংকের গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ও যাবতীয় আসবাবসহ ঘরে থাকা সম্পূর্ণ মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে তাঁর প্রায় ২৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

এসময় জমাত উল্লাহর কৃষক বীজ ভাণ্ডারসহ বসত ঘরের ৪টি কক্ষেও আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এতে ৬ লাখ টাকার বীজ, নগদ আড়াই লাখ টাকাসহ ঘরে থাকা যাবতীয় আসবাবপত্র পুড়ে যায়। এতে তাঁর প্রায় ৩০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে।

খবর পেয়ে এলাকাবাসী ও দমকল বাহিনীর কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

ক্ষতিগ্রস্ত মিন্টু মিয়ার স্ত্রী রুনা আক্তার কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘পরনের কাপড় ছাড়া আমাদের আর কিছুই নেই। সবকিছুই আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আমরা এখন সর্বশান্ত।’

বড় ভাই শহীদ মিয়া জানান, ‘অগ্নিকাণ্ডে আমাদের তিন ভাইয়ের বাড়িঘর, বীজগুদামসহ যাবতীয় মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে আমাদের কোটি টাকারও বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আমার দুই ভাই একেবারে নিঃস্ব হয়ে পড়েছে।’

পাকুন্দিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) দেওয়ান সাদেকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ও দমকল বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর