কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় দোকানপাট বন্ধ, রাস্তাঘাট ফাঁকা


 সাখাওয়াত হোসেন হৃদয় | ২৬ মার্চ ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৩:০৬ | পাকুন্দিয়া  


করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার সব দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। রাস্তাঘাট একদম ফাঁকা। উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশনানুযায়ী দোকানপাট ও যান চলাচল বন্ধ রেখেছে স্থানীয়রা। ওষুধের দোকান, মুদি দোকান ও কাঁচা বাজার খোলা থাকলেও ক্রেতা অনেক কম।

সরেজমিনে বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) বেলা ১০টা থেকে ১টা পর্যন্ত পাকুন্দিয়া পৌর এলাকা ঘুরে এমন চিত্র লক্ষ্য করা গেছে।

জানা যায়, সম্প্রতি করোনা ভাইরাস বাংলাদেশসহ পুরো বিশ্বে আতঙ্কে রূপ নিয়েছে। ইতোমধ্যে অনেকে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। সারা বিশে^র ন্যায় বাংলাদেশেও এর প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। এর মধ্যে বেশ কয়েকজন আক্রান্ত হয়েছেন। মারাও গেছেন ৪-৫জন।

এমন পরিস্থিতিতে সরকার বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। সরকারি ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে সর্বসাধারণকে বারবার অনুরোধ করা হচ্ছে। এ প্রেক্ষিতে স্থানীয় প্রশাসন করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের বিভিন্ন দিকনির্দেশনা বাস্তবায়নে মাঠ পর্যায়ে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন।

বুধবার (২৫ মার্চ) বিকেলে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত পাকুন্দিয়া উপজেলার সকল বাজারের সব দোকানপাট বন্ধ রাখতে বলা হয়। অটোরিকশা, সিএনজিসহ সকল যানবাহন বন্ধ রাখতেও বলা হয়।

এছাড়া সকল ধরণের গণজমায়েত ও প্রয়োজন ব্যতিত ঘরের বাইরে বেরুনোর উপরও নিষেধাজ্ঞা করা হয়। তবে ওষুধের দোকান, মুদি দোকান ও কাঁচাবাজার খোলা রাখার নির্দেশ দেয়া হয়।

উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে মাইকে প্রচারসহ স্থানীয় মসজিদ সমূহে এ ঘোষণা প্রচার করে দেওয়া হয়। প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) সকাল থেকে উপজেলার সকল দোকানপাট বন্ধ রাখে ব্যবসায়িরা।

অটোরিকশা, সিএনজি চালকরাও গাড়ি নিয়ে রাস্তায় নামেনি। তবে জরুরি প্রয়োজনে কিছু অটোরিকশা ও সিএনজি চলাচল করতে দেখা গেছে।

এদিকে কাঁচা বাজার খোলা থাকলেও বেচাকেনা অনেক কম বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়িরা। তারা বলেন, বাজারে পর্যাপ্ত কাঁচা সবজি থাকলেও ক্রেতা অনেক কম।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর