কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় প্রবাসীদের ঘরে রাখতে তৎপর প্রশাসন, টিম যাচ্ছে বাড়ি বাড়ি


 সাখাওয়াত হোসেন হৃদয় | ২২ মার্চ ২০২০, রবিবার, ৬:৪৮ | পাকুন্দিয়া  


কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় গত ১০ মার্চ থেকে ২২ মার্চ পর্যন্ত ১২ দিনে ৩৫ জন লোক বিদেশ থেকে এসেছেন। স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী বিদেশ ফেরতদের দুই সপ্তাহ হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

সে অনুযায়ী স্থানীয় প্রশাসন উপজেলার একটি পৌরসভা ও নয়টি ইউনিয়নে গত ১০ মার্চ থেকে বিদেশ থেকে আসা নারী-পুরুষের তালিকা তৈরি করছে।

তালিকা অনুযায়ী প্রত্যেককে স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী অন্তত দুই সপ্তাহ সম্পূর্ণ একা অর্থাৎ হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে মুঠোফোনে এবং তাদের বাড়িতে গিয়ে তদারকি করছে উপজেলা প্রশাসন।

তবে এর মধ্যে অনেকে স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। যারা মানছেন না তাদের উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সতর্ক করে দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাহিদ হাসান, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) একেএম লুৎফর রহমান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডা. জমির মো. হাসিবুস ছাত্তার ও পাকুন্দিয়া থানার ওসি মো. মফিজুর রহমানের নেতৃত্বে একটি টিম মাঠ পর্যায়ে প্রবাসীদের বাড়িতে গিয়ে নিয়মিত তদারকিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

এদিকে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সচেতনতামূলক লিফলেট, পরামর্শ দিয়ে মাইকিংসহ নানা প্রদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

অপরদিকে করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে নিত্যপণ্যের অতিরিক্ত দাম নিয়ন্ত্রণে মাঠ পর্যায়ে সার্বক্ষণিক তদারকি করছেন প্রশাসনের ঊর্ধতনরা। এতে পাকুন্দিয়া উপজেলার পৌরসদর বাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন বাজারে নিত্যপণ্যের দাম ক্রয়-ক্ষমতার ভেতরে রয়েছে।

বাজার নিয়ন্ত্রণে প্রশাসনের তদারকি অব্যাহত রাখার দাবি জানিয়েছেন সাধারণ লোকজন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাহিদ হাসান বলেন, করোনা ভাইরাস পুরো বিশ্বকে স্তব্ধ করে দিয়েছে। এটি প্রতিরোধে আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে।

বিদেশ ফেরতদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। এর পাশাপাশি আমরা তদারকি অব্যাহত রেখেছি।

এছাড়া নিত্যপণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে বাজার কমিটিসহ ব্যবসায়ীদের সতর্ক করা হচ্ছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর