কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


মৌলভীবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ ইউএনও কিশোরগঞ্জের কৃতী সন্তান নজরুল ইসলাম


 স্টাফ রিপোর্টার | ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ১১:০৬ | রকমারি 


জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০১৯-এ মৌলভীবাজার জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নির্বাচিত হয়েছেন কিশোরগঞ্জের কৃতী সন্তান শ্রীমঙ্গলের উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নজরুল ইসলাম।

প্রাথমিক শিক্ষায় বিশেষ অবদান রাখায় তাঁকে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০১৯-এ মৌলভীবাজার জেলায় শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নির্বাচিত করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) হিসেবে নজরুল ইসলাম শ্রীমঙ্গল উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে মিড-ডে-মিল চালু, শিক্ষার্থীদের নীতি-নৈতিকতা তৈরিতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ, শিশুদের স্কুলগামী করতে উদ্ধুদ্ধকরণ, স্কুলগুলোতে অভিভাবক ও মা সমাবেশ আয়োজন, ঝরে পড়া রোধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ, প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখা, ক্ষুদ্র নৃ-তাত্বিক জনগোষ্ঠীর শিশুদের স্কুলগামী করা, দুর্গম ও পাহাড়ী এলাকার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিশুদের স্কুলগামী করতে শিক্ষা উপকরণ যেমন- বাইসাইকেল, স্কুলব্যাগ, টিফিন বক্স, ডিকশেনারী, বই, খাতা, কলম প্রভৃতি বিতরণের মাধ্যমে শ্রীমঙ্গল উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষার উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখেন।

নজরুল ইসলাম গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) হিসেবে যোগদান করেন। এই সময়ে তিনি একজন সরলমনা, সদা প্রাণবন্ত এবং সৃজনশীল কর্মবীর হিসেবে সেখানকার জনমানুষের মনে ঠাঁই করে নিয়েছেন।

শ্রীমঙ্গলের উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নজরুল ইসলাম কিশোরগঞ্জ জেলার কটিয়াদী উপজেলার মুমুরদিয়া ইউনিয়নের পিপুলিয়া গ্রামের গর্বিত সন্তান। তাঁর বাবা অবসরপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মো. হাবিবুর রহমান ও মা আম্বিয়া বেগম।

নজরুল ইসলাম ১৯৯৮ সালে চাতল বাগহাটা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ  থেকে প্রথম বিভাগে এসএসসি এবং ২০০০ সালে খিদিরপুর কলেজ থেকে স্টার মার্কস পেয়ে কৃতিত্বের সাথে এইচএসসি পাস করেন। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০০৪ সালে লোকপ্রশাসন বিভাগ থেকে স্নাতক এবং ২০০৫ সালে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন।

প্রথমে তিনি সোনালী ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার হিসেবে চাকুরিতে যোগদান করেন। ৩১তম প্রশাসন ক্যাডারে উত্তীর্ণ হয়ে ২০১৩ সালে নজরুল ইসলাম নোয়াখালীতে নোয়াখালী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সহকারী কমিশনার হিসেবে চাকুরীতে যোগদান করেন।

পরে ঢাকা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় এবং ২০১৬ সালের ডিসেম্বর থেকে মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৮ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে তিনি সিনিয়র সহকারী সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর