কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ খুর্শিদ উদ্দিনের জীবনী গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব


 রাজন সরকার, পাকুন্দিয়া | ৭ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার, ৪:৪৬ | পাকুন্দিয়া  


আধুনিক পাকুন্দিয়ার রূপকার প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ বহু প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা খুর্শিদ উদ্দিন আহমেদের জীবন, কর্ম ও রাজনীতি নিয়ে লেখা জীবনী গ্রন্থ ‘জীবন ও যুক্তফ্রন্ট রাজনীতি-১৯৫৪’ গ্রন্থের প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুরে পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদ চত্বরে এ প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

চার্টার্ড সেক্রেটারী আসাদুল্লাহ মাহমুদ রচিত এবং রাজিয়া রহমান জাগৃতি প্রকাশনীর উদ্যোগে প্রকাশিত এই জীবনী গ্রন্থের মোড়ক উম্মোচন করেন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কিশোরগঞ্জ-২ (পাকুন্দিয়া-কটিয়াদী) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য সাবেক আইজিপি নূর মোহাম্মদ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সাবেক অধ্যাপক আবুল কাশেম ফজলুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মঞ্জুরুর রহমান, বাংলাদেশ পুলিশের সাবেক ডিআইজি কুতুবুর রহমান, পুলিশ হেড কোয়ার্টার্সের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুর রহমান, পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম রেনু, পাকুন্দিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাহিদ হাসান, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি ব্যারিষ্টার নাজমুল করিম, চার্টার্ড সেক্রেটারী সাধন চন্দ্র দাস, দৈনিক শতাব্দীর কন্ঠ পত্রিকার সম্পাদক আহমেদ উল্লাহ প্রমুখ।

হাজী জাফর আলী কলেজের প্রভাষক তরীকুল হাসান শাহীন ও চার্টার্ড সেক্রেটারী আসাদুল্লাহ মাহমুদের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আলোচক ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ-উপাচার্য মুহম্মদ নূরুল্লাহ, বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার সিরাজুল ইসলাম, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র নির্বাহী প্রকৌশলী আলমগীর খোরশেদ, পাকুন্দিয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. কফিল উদ্দিন প্রমুখ।

খুর্শিদ উদ্দিন আহমেদ ১৮৯৭ সালে পাকুন্দিয়া উপজেলার নারান্দী গ্রামে মালং পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৮ সালে তিনি মারা যান। তিনি (১৯৫৪-৫৮ সালে) পূর্ব পাকিস্তান আইন পরিষদের সদস্য ছিলেন এবং (১৯৫৪-৫৬ সালে) যুক্তফ্রন্ট সরকারের পার্লামেন্টারী সেক্রেটারী ছিলেন। তিনি পাকুন্দিয়া সরকারি কলেজ, নারান্দী উচ্চ বিদ্যালয়সহ অর্ধশতাধিক প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর