কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কুলিয়ারচর থানার এসআই আবুল কালাম আজাদ ঢাকা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ মামলা তদন্তকারী অফিসার


 মুহাম্মদ শাহ্ আলম, স্টাফ রিপোর্টার, কুলিয়ারচর | ৫ ডিসেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৭:১০ | বিশেষ সংবাদ 


কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আবুল কালাম আজাদ ঢাকা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ মামলা তদন্তকারী অফিসার নির্বাচিত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) ঢাকা রেঞ্জের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় তাকে রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ মামলা তদন্তকারী অফিসার হিসেবে পুরস্কৃত করা হয়।

ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান বিপিএম (বার) পিপিএম (বার)ঢাকা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ মামলা তদন্তকারী অফিসার হিসেবে কুলিয়ারচর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আবুল কালাম আজাদ এর হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

এতে ঢাকা রেঞ্জের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ, কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার) সহ রেঞ্জের সকল জেলার পুলিশ সুপারগণ উপস্থিত ছিলেন।

গত অক্টোবর মাসে কিশোরগঞ্জ জেলার একাধিক ক্লূ-লেস মামলার মূল রহস্য উদঘাটন, আন্তঃজেলা চোর চক্রের নিকট থেকে চোরাই মালামাল ও ট্রাক উদ্ধারের জন্য কিশোরগঞ্জ জেলার পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার) কর্তৃক সুপারিশক্রমে উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) মো. আবুল কালাম আজাদকে ঢাকা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ মামলা তদন্তকারী অফিসার হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এর আগে গত এপ্রিল মাসের পারফর্মেন্স বিবেচনায় এসআই আবুল কালাম আজাদ ঢাকা রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ এসআই হিসেবে নির্বাচিত ও পুরস্কৃত হন। এছাড়া কুলিয়ারচর থানার এসআই আবুল কালাম আজাদ এর আগে প্রায় ১৫ বার কিশোরগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ এসআই হিসেবে নির্বাচিত ও পুরস্কৃত হয়েছেন।

এসআই আবুল কালাম আজাদ এর উল্লেখযোগ্য কর্মকাণ্ডের মধ্যে গত ২০ এপ্রিল প্রথমে তিনি একটি চোরাই মোটর সাইকেলসহ এক চোরকে আটক করেন। এর সূত্র ধরে কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল হাই তালুকদারের নেতৃত্বে এসআই আবুল কালাম আজাদ সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে মোট ১৪টি চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধারসহ চোরচক্রের তিন সদস্যকে আটক করে সফলতা দেখান। এছাড়া মাদক নির্মূল, চোরাই মালামাল ও সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতারে অবদান রেখে চলেছেন তিনি।

এসআই আবুল কালাম আজাদ নেত্রকোণা জেলার মদন উপজেলার গোবিন্দশ্রী গ্রামে ১৯৮০ সালে জন্ম গ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মো. জালাল উদ্দিন। ২০০০ সালে তিনি পুলিশের চাকুরিতে যোগদান করেন।

গত মার্চ মাসে কুলিয়ারচর থানায় এসআই হিসেবে যোগদান করার পর থেকে তিনি অপরাধ দমনে একের পর এক সফল অভিযান পরিচালনা করে আসছেন। এছাড়া তিনি কিশোরগঞ্জ জেলার সদর থানা, কটিয়াদী ও বাজিতপুর থানায় দায়িত্ব পালনকালে প্রায় ৩৫টি চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধারসহ চোরচক্রের প্রায় ১৫ জন সদস্যকে আটক করে ও অপরাধ দমনে সক্ষমতা ও সফলতার স্বাক্ষর রাখেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর