কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় দাম বাড়ার ‘গুজবে’ লবণ কেনার ধুম


 সাখাওয়াত হোসেন হৃদয় | ১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৫:৫৩ | পাকুন্দিয়া  


কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় লবণের দাম বৃদ্ধি ও সংকটের গুজবে লবণ কেনার ধুম পড়েছে দোকানগুলোতে। মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সকাল থেকেই পাকুন্দিয়া পৌরসদর বাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন বাজারের দোকানগুলোতে লবণ কিনতে ক্রেতারা ভীড় করছেন। তারা প্রয়োজনের তুলনায় বেশি পরিমাপে লবণ কিনছেন। তবে কোনো রকম দাম না বাড়িয়ে আগের দরেই লবণ বেচছেন দোকানদারেরা।

এদিকে গুজব প্রতিরোধে ও বাজার মনিটরিংয়ে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপজেলার সবকটি বাজারের ব্যবসায়ি ও ব্যবসায়ি নেতাদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

পৌরসদরবাজারসহ কয়েকটি বাজার ঘুরে জানা গেছে, সকাল থেকেই পাকুন্দিয়ায় লবণ সংকট ও দাম বাড়ার গুজব দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে থাকে। মানুষের মুখে মুখে এমন গুজব ছড়িয়ে পড়ায় অনেকে তড়িঘড়ি করে প্রয়োজনের চেয়েও বেশি পরিমাণে লবণ কিনছেন।

এছাড়া গুজবে বিভ্রান্ত হয়ে পরিচিতজনদেরও লবণ কিনে রাখার জন্য পরামর্শ দিচ্ছেন। তবে লবণ বিক্রেতারা অন্য দিনের তুলনায় বেশি পরিমাণে লবণ বেচলেও অতিরিক্ত টাকা নিচ্ছেন না।

কয়েকজন ক্রেতা জানান, সম্প্রতি পিয়াজের মূল্য বৃদ্ধিতে তারা খুবই অসহায় হয়ে পড়েছেন। লবণের কেজি ১৫০ টাকা হয়ে যাবে এমন গুজবে মনের ভীতি থেকেই তারা প্রয়োজনের চেয়ে বেশি পরিমাণে লবণ কিনছেন। যেন পরবর্তীতে সংকটে পড়ে বেশি দামে কিনতে না হয়।

পাকুন্দিয়া সদর বাজারের মুদি দোকানি মো. রমজান মিয়া বলেন, অন্য দিনের তুলনায় মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সকাল থেকেই লবণ বিক্রির হিড়িক পড়েছে। একেকজন আসছেন আর চার থেকে পাঁচ কেজি করে লবণ কিনছেন। তবে তারা ন্যায্য মূল্যেই লবণ বিক্রি করছেন বলে জানান।

একই বাজারের মদিনা স্টোরের মো. নাজমুল মিয়া নামে এক পাইকারী ব্যবসায়ী জানান, খুচরা দোকানদারেরা অন্যদিনের তুলনায় বেশি পরিমাণে লবণ কিনে নিচ্ছেন। তবে লবণের কোনো সংকট নেই। দাম বাড়ারও কোনো আশঙ্কা নেই বলে কোম্পানিগুলোর সাথে কথা বলে তারা নিশ্চিত হয়েছেন বলেও তিনি জানান।

এ ব্যাপারে পাকুন্দিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাহিদ হাসান বলেন, লবণের সংকট ও দাম বাড়ার গুজবে কান না দিতে সকলকে সতর্ক করা হচ্ছে। পাশাপাশি এ সুযোগে যেন কোন ব্যবসায়ি অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করতে না পারে সেজন্য উপজেলার সবকটি বাজারের ব্যবসায়িদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর