কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


কিশোরগঞ্জে প্রতিবন্ধী রানার চিকিৎসায় দরিদ্র বাবার আকুতি


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৫:২৪ | রকমারি 


কিশোরগঞ্জ সদরের নীলগঞ্জ রোড স্টেডিয়াম গেইট এলাকার প্রতিবন্ধী মো. সোহেল রানা (৩৬) কে নিয়ে বিপাকে রয়েছেন হতদরিদ্র এক পরিবার। জন্মের পর ১০ বছর বয়স থেকে দীর্ঘস্থায়ী মানসিক অসুস্থতাজনিত প্রতিবন্ধী হওয়ায় তার চিকিৎসা করাতে গিয়ে দরিদ্র পরিবারটি এখন নিঃস্ব। গত পাঁচ বছর আগে মা রেহানা খাতুন মারা যাওয়ার পর থেকে বাবা মো. এমদাদুল হক নিজেই একমাত্র ছেলের দেখাশোনা করছেন। এতে করে সংসারের ব্যয় নির্বাহ করাও তার জন্য কঠিন হয়ে পড়েছে।

প্রতিবন্ধী ছেলেকে ইতোমধ্যে তিনি ময়মনসিংহ, ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে নিয়ে চিকিৎসা করিয়েছেন। জমিজমা বিক্রি এবং ব্যবসা নষ্ট করে প্রায় ১৫ লাখ টাকা ছেলের চিকিৎসার পেছনে খরচ করে এখন তিনি নিঃস্ব। বর্তমানে ছেলের চিকিৎসা বাবদ প্রতিদিন দুইশত টাকা তার খরচ হয়। আত্মীয়স্বজন ও অন্যদের সহযোগিতায় কোনরকমে এই খরচ চালাচ্ছেন তিনি।

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা বলেছেন, দেশের বাইরে নিয়ে চিকিৎসা করাতে পারলে দীর্ঘমেয়াদী এই রোগ থেকে রানা মুক্তি পেতে পারে। কিন্তু দেশের বাইরে নিয়ে চিকিৎসা করাতে অন্তত ২৫ লাখ টাকা খরচ হবে, যা দরিদ্র এই বাবার পক্ষে কোনভাবেই সম্ভব নয়।

এ পরিস্থিতিতে সহায় সম্বলহীন ও ঋণগ্রস্থ দরিদ্র বাবা এমদাদুল হক ছেলের চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও দেশের বিত্তবান-দানশীলসহ সর্বস্তরের লোকজনের কাছে আর্থিক সহায়তা প্রার্থনা করেছেন। এমদাদুল হকের আশা, মানবিক মানুষজনের সহায়তায় তার ছেলে রানা সুস্থ হয়ে আধার ঘরে আলোর রোশনাই ছড়াবে।

রানার চিকিৎসায় আর্থিক সাহায্য প্রদানের জন্য যোগাযোগ: মো. এমদাদুল হক, মোবাইল নম্বর- ০১৭২৯-৩৯৫৫৫২। এছাড়া ব্যাংকে সহায়তা পাঠাতে: মো. এমদাদুল হক, সঞ্চয়ী হিসাব নং-৩৪১১৬০১০২১৫৮৯, সোনালী ব্যাংক, কিশোরগঞ্জ শাখা।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর