কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


গোলরক্ষক হিমেলে মুগ্ধ বাংলাদেশ, বাদ পড়ায় তোলপাড়


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার, ৮:৫৫ | বিশেষ সংবাদ 


বিশ্বকাপ ফুটবল বাছাইয়ে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচকে সামনে রেখে ২৬ আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ দলের ক্যাম্প। এ ম্যাচকে সামনে রেখে ২৫ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়েছে। স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েছেন লিগে দুর্দান্ত পারফর্ম করা দেশসেরা গোলরক্ষক মাজহারুল ইসলাম হিমেল।

কিশোরগঞ্জের সন্তান কৃতী এই গোলরক্ষকের দল থেকে বাদ পড়ায় বিস্মিত ফুটবল বিশেষজ্ঞরা। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা হিমেলকে বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ মিশনের স্বপ্নযাত্রায় উপেক্ষা করায় বইছে সমালোচনার ঝড়।

ঐতিহ্যবাহী আবাহনী, মোহামেডান, শেখ জামাল ধানমণ্ডির জার্সি গায়ে হিমেল মাতিয়েছেন ক্লাব ফুটবল। তাঁর হাতের জাদুতে একের পর শিরোপা ওঠেছে দলগুলোর হাতে। বর্তমানে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের গোলবার সামলাচ্ছেন দেশসেরা এই গোলরক্ষক।

লিগে দুর্দান্ত পারফর্ম করেও গোলরক্ষক হিমেলের বাদপড়া নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঝড় উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীরা বলছেন, জাতীয় দল থেকে একজন খেলোয়াড়কে বাদ দিয়ে অন্য একজন খেলোয়াড়কে সুযোগ দিতে হলে অবশ্যই সেই খেলোয়াড়টির লীগ এর পারফরম্যান্স খারাপ হতে হবে অথবা ইনজুরি হতে হবে। নতুবা যাকে সুযোগ দেওয়া হবে তার ওই বাদ পড়া খেলোয়াড়ের পারফরম্যান্সের চাইতেই অনেক বেশি ভাল খেলতে হবে। কিন্তু গোলরক্ষক মাজহারুল ইসলাম হিমেল এর বেলায় সেটি হচ্ছে না। যা অত্যন্ত দুঃখজনক।

মাজহারুল ইসলাম হিমেলকে জাতীয় দল থেকে বাদ দেয়ায় ক্ষোভ ঝাড়ছেন ফেসবুক ব্যবহারকারীরা। তাদের ভাষ্য, দেশসেরা এই গোলরক্ষককে উপেক্ষা নয় বরং তাঁর মেধা ও যোগ্যতাকে দেশের প্রয়োজনে কাজে লাগানো উচিত।

ফেসবুকে একজন লিখেছেন, দেশের স্বার্থে, যোগ্যতার ভিত্তিতে ফুটবল দল গঠন করুন। অন্যথায় খাদের কিনারায় এসে যে ফুটবল পৌঁছেছে তা আর কখনোই স্বপ্নের সিঁড়ি বেয়ে উপরে উঠতে পারবে না।

আরেকজন লিখেছেন, বি লীগ এ যে সব খেলোয়াড়ের ভালো পারফরম্যান্স তাদেরকে জাতীয় দলে সুযোগ দেওয়া উচিত ফুটবলের উন্নতির জন্য। কিন্তু গোলরক্ষক বাছাই এর সময় এটা মানা হয়নি। গোলরক্ষক হিমেল বি লীগে পারফরম্যান্স করার পরও কেন তাকে বাদ দেওয়া হলো, বাফুফের কাছে আমরা সঠিক ব্যাখা দাবি করছি।

আরেকজন লিখেছেন, কর্তৃপক্ষের কাছে সবিনয়ে অনুরোধ দেশের স্বার্থে যেনো কোনো স্বজনপ্রীতি না হয়। যোগ্যদের যথাযথ মূল্যায়ণ করে দেশের মান অক্ষুণ্ন রাখার মানসিকতা তৈরি করুন। হিমেল সমগ্র বাংলাদেশের মূল্যবান সম্পদ। তাকে বাদ দিলে শুধু একজন খেলোয়াড়ের মন ভেঙ্গে দেয়া হবে না, সমগ্র বাংলাদেশের অযুত ফুটবল অনুরাগীও মন ভেঙ্গে দেয়া হবে।

অন্য আরেকজন লিখেছেন, হিমেলকে তার প্রাপ্যটুকু দেয়া উচিত বলে মনে করি। বাফুফের উচিত তাদের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা।

আরেকজন লিখেছেন, পারফর্মেন্সের ভিত্তিতে প্রতিটি খেলোয়াড় নির্বাচন করা প্রয়োজন। কেননা জাতীয় দল কোন ব্যক্তির স্বার্থ প্রতিষ্ঠা কিংবা রক্ষা করার জন্য গঠন করা উচিত নয়। জাতীয় দল একটি দেশের পতাকা বহন করে। এটি আমাদের সকলের মাথায় রাখা উচিত।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর