কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশনের ‘শাহ মাহতাব আলী স্মারক বক্তৃতা’ দেবেন দোলন ভৌমিক


 স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১২:৩৯ | বিশেষ সংবাদ 


বরিষ্ঠ চিকিৎসক, ভাষাসংগ্রামী ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ডা. এএ মাজহারুল হক এবং সমাজসেবী নূরজাহান বেগম প্রতিষ্ঠিত ও ড. মাহফুজ পারভেজ পরিচালিত সমাজ, সাহিত্য, শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থা মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশন আগামী সেপ্টেম্বর মাসে ‘শাহ মাহতাব আলী স্মারক বক্তৃতা’র আয়োজন করেছে।

'মানবাধিকার, সম্প্রীতি ও সুশাসন' বিষয়ক ১ম শাহ মাহতাব আলী স্মারক বক্তৃতা ২০১৯ প্রদান করবেন কিশোরগঞ্জের প্রবীণতম রাজনীতিবিদ, আইনজ্ঞ, লোকহিতকর ব্যক্তিত্ব অ্যাডভোকেট ভূপেন্দ্র ভৌমিক দোলন।

মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক, সিনিয়র প্রফেসর ড. মাহফুজ পারভেজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিতব্য  ১ম শাহ মাহতাব আলী স্মারক বক্তৃতা ২০১৯-এ নির্ধারিত বক্তা থাকবেন প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ মেডিকেল কলেজের প্রিন্সিপাল ডা. আনম নৌশাদ খান, জেলা পরিষদ সদস্য ফৌজিয়া জলিল ন্যান্সী, সাংবাদিক ও কৃষক নেতা আনোয়ার হোসেন বাচ্চু, কিশোরগঞ্জনিউজ প্রধান সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে স্বাগত ভাষণ দেবেন শাহ মাহতাব আলীর পুত্র সমাজসেবক শাহ ইসকান্দার আলী স্বপন এবং সঞ্চালনা করবেন ঈশা খা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের সভাপতি মো.  বদরুল হুদা সোহেল।

উল্লেখ্য, গত ১ জুলাই মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশনের সঙ্গে ঋদ্ধ মননের প্রাগ্রসর ভূমিপুত্র শতবর্ষী ব্যক্তিত্ব শাহ মাহতাব আলী’র পরিবারের সদস্যদের এক সভায় স্মারক বক্তৃতার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ফলে মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশন ২০১৫ সাল থেকে কিশোরগঞ্জের সমাজ, সংস্কৃতি, শিক্ষা, সাহিত্য ক্ষেত্রে কৃতি-বরেণ্য ব্যক্তিদের সম্মাননা প্রদানের কার্যক্রমের পাশাপাশি স্মারক বক্তৃতারও আয়োজন করবে।

অতীতের মতো মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশন সম্মাননা বক্তৃতা প্রদান করবেন ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. মাহফুজ পারভেজ। তাছাড়া ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ‘শাহ মাহতাব আলী স্মারক বক্তৃতা’ দেবেন দেশের একজন বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবি-শিক্ষাবিদ-ব্যক্তিত্ব। যিনি তার বক্তৃতায় সমকালী বিষয়ে আলোকপাত করবেন।

প্রতিবছর ভিন্ন ভিন্ন বক্তা কিশোরগঞ্জে অনুষ্ঠিত এ বক্তৃতায় অংশ নেবেন।

উল্লেখ্য ইতিপূর্বে ১ম মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশন সম্মাননা বক্তৃতা ২০১৫ (আলোর পথের যাত্রী: সাহিত্যিক-শিক্ষাবিদ প্রাণেশকুমার চৌধুরী), ২য় মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশন সম্মাননা বক্তৃতা ২০১৬ (দীপ্তিমান শিক্ষকদম্পতি: অধ্যক্ষ মুহঃ নূরুল ইসলাম/খালেদা ইসলাম বড়আপা), ৩য় মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশন সম্মাননা বক্তৃতা ২০১৭ (প্রজ্ঞার দ্যুতি ও আভিজাত্যের প্রতীক: প্রফেসর রফিকুর রহমান চৌধুরী), ৪র্থ মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশন সম্মাননা ২০১৮ (ঋদ্ধ মননের প্রাগ্রসর ভূমিপুত্র শতবর্ষী ব্যক্তিত্ব: শাহ মাহতাব আলী) এবং ৫ম মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশন সম্মাননা ২০১৯ প্রাপ্ত ‘স্বাস্থ্যসেবা ও উচ্চশিক্ষা বিস্তারের পথিকৃৎ: প্রফেসর ডা. আ. ন. ম নৌশাদ খান-ডা. সুফিয়া খাতুন’ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ধারাবাহিকতায় ২০২০ সালে ৬ষ্ঠ বক্তৃতা অনুষ্ঠিত হবে কিশোরগঞ্জের বিশিষ্ট একজন ব্যক্তিত্বকে সম্মাননা জানানোর মাধ্যমে। তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি সম্ভাব্য সম্মাননা প্রাপ্ত ব্যক্তিদের একটি প্যানেল প্রণয়নের জন্য কাজ করছে।

কিশোরগঞ্জের সমাজ, শিক্ষা, সাহিত্য, সংস্কৃতি, চিকিৎসা ক্ষেত্রে মাজহারুন-নূর ফাউন্ডেশন সম্মাননার ঐতিহ্যের ধারাবাহিকতায় এ বছর থেকে শুরু হওয়া ‘শাহ মাহতাব আলী স্মারক বক্তৃতা’ স্থানীয় বুদ্ধিবৃত্তিক বিকাশ ও সামাজিক গতিশীলতায় ইতিবাচক ভূমিকা পালন করবে।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর