কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


পাকুন্দিয়ায় ‘চি’ খেলা দেখতে দর্শকের ঢল


 স্টাফ রিপোর্টার | ২৭ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৭:২৩ | খেলাধুলা 


পাকুন্দিয়ায় আবহমান গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী ‘চি’খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৬ জুন) বিকালে উপজেলার বুরুদিয়া ‘বটতলা গ্রাম বাংলা যুবসংঘের’ উদ্যোগে বটতলা বাজার সংলগ্ন এক মাঠে ঐতিহ্যবাহী এ ‘চি’ খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

বটতলা এলাকা ছাড়াও আশপাশ ও বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা কয়েক হাজার দর্শক উপস্থিত থেকে বিলুপ্তপ্রায় গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী এ খেলাটি উপভোগ করেন।

বুরুদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মো. মাহ্বুবুর রহমানের সভাপতিত্বে এই খেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে খেলা উপভোগ শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন বুরুদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মো. দেলোয়ার জাহান সুমন।

এর আগে খেলার উদ্বোধন করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি।

বিকাল ৪টা থেকে শুরু হয় এ খেলা। টানা দুই ঘন্টা ধরে চলে শেষ হয় ৬টায়। খেলায় পাকুন্দিয়া উপজেলাসহ পাশর্^বর্তী কটিয়াদী, মনোহরদীসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে ৪০ জন খেলোয়াড় অংশ নেন।

‘চি’ খেলাটি কিশোরগঞ্জ জেলাসহ আশপাশের এলাকায় বেশ জনপ্রিয়। এ খেলা দেশের অন্যান্য এলাকায় প্রচলিত কাবাডি কিংবা হা-ডু-ডু খেলার মতোই। অনেকে আবার বলি খেলার সাথেও তুলনা করে থাকেন।

খেলায় সর্বোচ্চ ১১ পয়েন্ট পেয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেন কটিয়াদী উপজেলার মানিকখালী গ্রামের মো. রুমন মিয়া। পুরস্কার হিসেবে তিনি একটি ২৪ইঞ্চি এলইডি টিভি পান।

দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেন একই এলাকার ও রুমনের ছোট ভাই নূরু মিয়া। তিনি  পুরস্কার হিসেবে পান একটি খাসী। তৃতীয় স্থান অর্জন করেন মনোহরদী উপজেলার মো. রবিন মিয়া। পুরস্কার হিসেবে তিনি পান একটি এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন। এছাড়াও মোট ২০টি পুরস্কার দেয়া হয়।

খেলা পরিচালনা করেন মো. বজলুর রহমান ও মো. মুকিদ খান। বটতলা এলাকার ১২৫ জন যুবক স্বেচ্ছাসেবকের  দায়িত্বে নিয়োজিত থেকে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে খেলা সম্পন্ন করতে সহযোগিতা করেন। এতে উপস্থিত হাজার হাজার দর্শক সুন্দর পরিবেশে খেলা উপভোগ করেন।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর