কিশোরগঞ্জ নিউজ :: কিশোরগঞ্জকে জানার সুবর্ণ জানালা


সৌদির সড়কে নিহত হওয়ার ৮২ দিন পর লাশ এলো পাকুন্দিয়ার সেলিমের


 স্টাফ রিপোর্টার | ২৬ জুন ২০১৯, বুধবার, ৯:১৩ | প্রবাস 


সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার ৮২ দিন পর বুধবার (২৬ জুন) পাকুন্দিয়া উপজেলার নারান্দী ইউনিয়নের গাংকুলপাড়া গ্রামের বাড়িতে লাশ এলো সেলিম উদ্দিন (২৫) এর। ভোরে সেলিমের মরদেহ গ্রামের বাড়িতে এসে পৌঁছলে সেখানে শোকের ছায়া নেমে আসে। দুপুর ২টায় নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

সেলিম কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার নারান্দী ইউনিয়নের গাংকুলপাড়া গ্রামের মো. সিরাজ উদ্দিনের ছেলে। গত ৪ এপ্রিল সৌদি আরবের রিয়াদে তিনি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন।

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার মাত্র ৯ দিন আগে গত ২৫ মার্চ পরিবারে সচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে সৌদি আরবে গিয়েছিলেন সেলিম।

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার খবর জানার পর থেকেই পরিবারে চলছিল শোকের মাতম। বুধবার (২৬ জুন) ভোরে সেলিমের মরদেহ নিয়ে আসার পর স্বজনদের আহাজারি আর কান্নায় ভারি হয়ে ওঠে এলাকার পরিবেশ।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত ২৫ মার্চ সেলিম সৌদি আরব যান। সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে তিনি পরিচ্ছন্নকর্মীর কাজ করতেন।

গত ৪ এপ্রিল বিকালে কাজ শেষে গাড়িযোগে বাসায় ফিরছিলেন। পথে অপর একটি গাড়ি পেছন দিক থেকে ধাক্কা দেয় সেলিমের গাড়িকে। এতে সেলিমসহ কয়েকজন আহত হন। গুরুতর আহত সেলিমকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রবাসে সেলিমের এমন মৃত্যুতে পরিবারটিতে শোকের সাথে নেমে আসে চরম বিপর্যয়।




[মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ি নয়। মতামত একান্তই পাঠকের নিজস্ব। এর সকল দায়ভার বর্তায় মতামত প্রদানকারীর]

এ বিভাগের আরও খবর